প্রচলিত নামঃ শ্বেত পুনর্ণভা

ইউনানী নামঃ বিস্‌খাপ্‌রা

আয়ুর্বেদিক নামঃ পুনর্ণবা

ইংরেজি নামঃ Spreading Hogweed

বৈজ্ঞানিক নামঃ Boerhaavia diffusa Linn

পরিবারঃ Nyctaginaceae

পরিচিতিঃ পুনর্ণভা বহুবর্ষজীবী লতানো বীরুৎ। বাংলাদেশের সর্বত্রই পুনর্ণভা পাওয়া যায়। পাতা সরল, সাদা ও হালকা গোলাপী রংয়ের দুই রকম ফুল হতে দেখা যায়। এর বীজ অনেকটা পাটের বীজের মত।

প্রাপ্তিস্থানঃ বাংলাদেশের সর্বত্রই পতিত জমিতে জন্মাতে দেখা যায়।

রোপনের সময় ও পদ্ধতিঃ বীজ থেকে চারা করে এবং ডালা লাগিয়ে বংশ বৃদ্ধি করা যায়। যে কোন সময় লাগানো যায় তবে বর্ষার লাগানোই ভাল।

রাসায়নিক উপাদানঃ পাতায় ও শাখায় অ্যালকালয়েড ও পটাশিয়াম লবণ এবং মূলে স্যাপোনিন গ্লাইকোসাইড বিদ্যমান।

ব্যবহার্য অংশঃ সমগ্র উদ্ভিদ।

গুনাগুনঃ শোথ, মূত্রক্রিচ্ছতা ও জন্ডিসে উপকারী। ফোলা নিবারক, মূত্রকারক, ঋতুস্রাব বর্ধক, অনিদ্রা ও ঘুসঘুসে জ্বরে উপকারী।

বিশেষ কার্যকারিতাঃ শোথ, মূত্রক্রিচ্ছতা ও জন্ডিস।

রোগ অনুযায়ী ব্যবহার পদ্ধতিঃ

রোগেরনামঃ শোথ ও মূত্রক্রিচ্ছতা
ব্যবহার্য অংশঃ সমগ্র উদ্ভিদ (আধাচূর্ণ)
মাত্রাঃ ২০-৩০ গ্রাম
ব্যবহার পদ্ধতিঃ মূল সমেত পুনর্ণভা গাছ ২০-৩০ গ্রাম আদা ৩/৪ গ্রাম একসাথে ৪ কাপ পানিতে সিদ্ধ করে সকাল ও বিকালে দুইবার সেব্য।

রোগেরনামঃ ঋতুস্রাব ও অনিদ্রায়
ব্যবহার্য অংশঃ সমগ্র গাছ (আধাচূর্ণ)
মাত্রাঃ ২০-৩০ গ্রাম
ব্যবহার পদ্ধতিঃ ৫/৬ কাপ পানিতে সিদ্ধ করে ১ কাপ ছেঁকে নিয়ে প্রত্যহ ২ বার সেব্য।

রোগেরনামঃ জন্ডিস ও ঘুসঘুসে জ্বরে
ব্যবহার্য অংশঃ সমগ্র উদ্ভিদ (আধাচূর্ণ)
মাত্রাঃ ১৫-২০ গ্রাম
ব্যবহার পদ্ধতিঃ ৪ কাপ পানিতে সেদ্ধ করে এক কাপ থাকতে নামিয়ে ছেঁকে নিয়ে রোজ সকাল বিকাল সেব্য।

সতর্কতাঃ এটি একটি বিষাক্ত উদ্ভিদ। ব্যবহারে সাবধানতা অবলম্বন করা উচিৎ।