আসামলতার পরিচিতি ও ভেষজ গুণাবলি:

আসামলতা এক প্রকার লতা জাতীয় উদ্ভিদ, যা অযত্নেই ঝোপ-ঝাড়ে হয়ে থাকে। এর পাতার মাথা সরু এবং কিনারা খাঁজ কাটা। পাতায় লোম আবৃত থাকে। এতে গুচ্ছ আকৃতির ছোট ছোট সাদা ফুল হয়।

প্রচলিত নামঃ আসামলতা

ইউনানী নামঃ আসামলতা

আয়ুর্বেদিক নামঃ মটমটি

ইংরেজি নামঃ Climbing Hemp

বৈজ্ঞানিক নামঃ Mikania cordata (Brum.f.) Rob

পরিবারঃ Asteraceae

প্রাপ্তিস্থানঃ বাংলাদেশের সর্বত্র, বিশেষ করে পাহাড়ী অঞ্চলে জন্মে।

রোপনের সময় ও পদ্ধতিঃ সারা বছরেই কাটিংয়ের মাধ্যমে এর বংশ বিস্তার করা যায়। বীজ বুনেও চাষ করা যায়।

রাসায়নিক উপাদানঃ পাতায় ও কান্ডে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন এ, বি ও সি বিদ্যমান। এ ছাড়াও এতে স্টিগমাস্টেরল, বিটা-সাইটোস্টেরল এবং সিসকুইটার্পিন ল্যাকটোন থাকে।

ব্যবহার্য অংশঃ পাতা, বিশেষ ক্ষেত্রে সমগ্র উদ্ভিদ।

গুনাগুনঃ রক্তরোধক, জীবাণু নাশক, জন্ডিসে উপকারী।

বিশেষ কার্যকারিতাঃ রক্তরোধক, জীবাণু নাশক।

রোগ অনুযায়ী ব্যবহার পদ্ধতিঃ

রোগেরনামঃ রক্তপাত বন্ধ করার ক্ষেত্রে
ব্যবহার্য অংশঃ পাতা
মাত্রাঃ ৪-৫ টি বা পরিমাণমত
ব্যবহার পদ্ধতিঃ পাতা পরিষ্কার করে ধুয়ে পিষে আক্রান্ত স্থানে লাগাতে হবে বা প্রলেপ দিতে হয়।

রোগেরনামঃ ক্ষত বা ঘায়ে
ব্যবহার্য অংশঃ পাতা বা গাছ
মাত্রাঃ ৫-১০ গ্রাম
ব্যবহার পদ্ধতিঃ পাতা বা সমগ্র উদ্ভিদ পিষে ক্ষত বা ঘায়ে প্রলেপ দিতে হয়।

রোগেরনামঃ জন্ডিসে
ব্যবহার্য অংশঃ পাতার রস
মাত্রাঃ ৫-১০ মিলি
ব্যবহার পদ্ধতিঃ সকাল-সন্ধ্যায় খালি পেটে সেব্য।

সতর্কতাঃ প্রয়োজনে অধিক ব্যবহার করা অনুচিত।